রাজনীতিতে স্থায়ী শত্রু বা মিত্র বলে কিছু হয় না

mamata-modi-759

রাজনীতিতে স্থায়ী শত্রু বা মিত্র বলে কিছু হয় না! কথাটি’র সত্যতা আরও একবার প্রমাণিত হল ‘আপাত অহিনকুল’ বিজেপি-তৃণমূলের মিত্রতার মধ্য দিয়ে। বর্তমান রাজনীতিতে ‘সাপে-নেউলে’র সম্পর্ক যে দুটি রাজনৈতিক দলের, তারাই এবার হাত ধরা ধরি করে সরকার গড়বে। একই পুকুরে ফুটবে পদ্ম এবং ঘাসফুল! মণিপুরে সরকার গড়তে ম্যাজিক সংখ্যার প্রয়োজন ছিল বিজেপির। সেখানে নিজেদের একটি ‘অমূল্য’ বিধায়কের সমর্থন জুগিয়ে ভারতীয় জনতা পার্টিকে সরকার গড়তে সাহায্য করবে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস। তিনটি আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের সঙ্গেই ‘রাজনৈতিক শত্রু’ তৃণমূল কংগ্রেসেরও সমর্থন আদায় করতে পেরেছে বিজেপি। ৬০ সংখ্যা বিশিষ্ট মণিপুর বিধানসভায় ২১টি আসনে জয়লাভ করেছে বিজেপি। ন্যাশনাল পিপলস পার্টি এবং নাগা পিপলস ফ্রন্ট দুটি দলই  ৪টি করে আসনে জয়ী হয়েছে। এই দুই দলই মণিপুরে বিজেপিকে সমর্থন করছে। নিজেদের সমর্থনের কথা জানিয়েছে লোক জন শক্তি পার্টিও। প্রয়োজন ছিল আরও একটি বিধায়কের। তৃণমূলের এক এবং একমাত্র বিধায়ক তংব্রাম রবীন্দ্র বিজেপিকে সমর্থন করায় মণিপুরে সরকার গড়তে বিজেপির আর কোনও সমস্যাই নেই।

রবিবার মণিপুরের রাজ্যপাল একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে বিজেপিকে ডেকে পাঠায় এবং সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করে সরকার গড়ার জন্য আহ্বান করে। এরপরই তৎপর বিজেপি২৪ ঘণ্টার মধ্যেই প্রয়োজনীয় সংখ্যা আদায় করে ফেলে। ৩ আঞ্চলিক দল সহ তৃণমূলের সমর্থন নিয়ে মণিপুরের সরকার হবে বিজেপির, আশাবাদী মণিপুরে বিজেপির রাজ্য সম্পাদক রাম মাধব।

প্রবাদপ্রতিম জন এফ. কেনেডি আর হার্বার্ট হোভারের সঙ্গে একই সারিতে চলে এলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প!

a-deal-for-donald-trump-b

প্রবাদপ্রতিম জন এফ. কেনেডি আর হার্বার্ট হোভারের সঙ্গে একই সারিতে চলে এলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প! একটি মহত্‍ কারণের জন্যই প্রবাদপ্রতিম সরণীতে ঠাঁই হয়েছে বিতর্কিত ডনের। কিন্তু কী সেই কারণ যা তাঁকে স্থান দিল কেনেডি, হোভারের ঠিক পাশেই?

সাধারণত, ট্রাম্পের যেকোনও সিদ্ধান্ত নিয়েই সমালোচনার ঝড় ওঠে। তিনিও তাতেই অভ্যস্ত হয়ে উঠছেন। কিন্তু তাঁর সাম্প্রতিক এক সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে মোটেই তেমনটা হল না। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসাবে ডোনাল্ড জন ট্রাম্প তাঁর নিজের পারিশ্রমিক জনকল্যাণে দান করার সিদ্ধান্ত জনসমক্ষে প্রকাশ করতেই সপ্রশংস প্রায় সব মহলই। হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট তাঁর পারিশ্রমিক অর্থাত্‍ ৪ লক্ষ মার্কিন ডলার বছরের শেষে জনকল্যাণে দান করতে চান। কিন্তু ঠিক কোন ক্ষেত্রে তিনি এই দান পৌঁছে দেবেন তা এখনও ঠিক করে উঠতে পারেননি সফল ব্যবসায়ী থেকে দেশের বিতর্কিত প্রসিডেন্ট হয়ে যাওয়া ট্রাম্প।

মিডিয়ার প্রতি সদাক্ষিপ্ত ট্রাম্প তাঁর এই মহত্‍ উদ্দেশ্যকে সফল করতে সংবাদ মাধ্যমের পরামর্শও চেয়েছেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, নির্বাচনী প্রচারের সময়েও নিউইয়র্কের বিলিয়নেয়ার ব্যবসায়ী ট্রাম্প বলেছিলেন যে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হলে তিনি তাঁর বেতন দান করবেন। আর এবার সরকারি মুখপাত্রের মাধ্যমে ঘোষণার মধ্যে দিয়ে আবারও ‘কথা রাখলেন’ ট্রাম্প। এর আগে অভিবাসন নীতি, মেক্সিকো সীমান্তে পাঁচিল তোলার মতো বিষয়ে ট্রাম্পকে ইতিমধ্যেই ‘কথা রাখতে’ দেখা গেছে। এবার আবারও তিনি কথা রাখলেন। ফারাক শুধু একটাই, এর আগে ‘কথা রাখা’র মাধ্যমে অনেককে আশঙ্কায় ফেলে দিয়েছেন তিনি, কিন্তু এবারের ‘কথা রাখা’য় আশা পাচ্ছে বিশ্ব।

উইন্ডোস ফোনে আর চলবে না সোশ্যাল নেটওয়ার্ক মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ

whatsapp-promo

উইন্ডোস ফোনে আর চলবে সোশ্যাল নেটওয়ার্ক মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ। ৩০ জুনের পর ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন না কোনও উইন্ডোস ফোন ব্যবহারকারীই।

মূলত হোয়াটসঅ্যাপযেভাবে আধুনিকীকরণের দিকে দৌড় শুরু করেছে তাতে অনেকটাই পিছিয়ে উইন্ডোস ফোন। ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপের তরফ থেকে পুরনো বছরেই এই ঘোষণা করা হয়েছিল,  ৩০ জুনের পর উইন্ডোস ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করেবে না। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন হোয়াটসঅ্যাপের মত বর্তমান সময়ের কার্যকারী একটি অ্যাপলিকেশনকে ভাল করে কাজ করাতে নিজেদেরকেও অত্যাধুনিক করার কথা ভাবছে উইন্ডোস ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলো।

একের পর এক ভার্সন লঞ্চ করে চমক দিচ্ছে হোয়াটস্যাপ। কখনও ভিডিও কল, কখনও ভয়েস কল, সবথেকে লেটেস্ট স্ট্যাটাস বারে পরিবর্তন, সব মিলিয়ে একটা পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্যে দিয়ে নিজেদেরকে চালনা করছে এই সোশ্যাল মাধ্যাম। আর এই পরীক্ষা নিরীক্ষা সেই আধারেই সম্ভব যেখানে হোয়াটসঅ্যাপের মত অ্যাপ সাপোর্ট করে। নিজদেরকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের ‘যোগ্য’ করে তুলতে উইন্ডোস ফোনে নতুন কিছু পরিবর্তন, যাতে GIF ফাইল, চ্যাট ডাটা প্রভৃতি বিষয় আপডেট করা হয়েছে।

জিও গ্রাহকদের জন্য দারুণ সুখবর

opportunities-with-jio

জিও গ্রাহকদের জন্য দারুণ সুখবর। জিও প্রাইম গ্রাহকরা এবার পাবেন অতিরিক্ত আরও ৫জিবি ফ্রি ডেটা। ৩১ মার্চ শেষ হবে জিওর ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ অফার। তার আগেই গ্রাহকদের জন্য জিওর উপহার ‘প্রাইম মেম্বারশিপ’। যেখানে গ্রাহকরা ৯৯ টাকা দিয়ে জিও প্রাইম মেম্বার হওয়ার সুবিধা পাবেন। একবার মেম্বার হওয়ার পর থেকে, মাসে ৩০৩ টাকা দিয়ে রিচার্জ করলে, তারা পেয়ে যাবেন দিনে ১জিবি করে ডেটা খরচের সুযোগ। অর্থাত্ ২৮ দিনে ২৮ জিবি। সঙ্গে আনলিমিটেড ভয়েস কলিংয়ের সুবিধা।

এবার জিওর ঘোষণা ২৮ দিনে ২৮ জিবি নয়, একই দামে মোট ৩৩জিবি ডেটা পাবেন গ্রাহকরা। অর্থাত্ অতিরিক্ত আরও ৫ জিবি ডেটা গ্রাহকরা পাবেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। ফলে দিনে ১জিবি ডেটা খরচের ঊর্ধ্বসীমা পেরিয়ে যাওয়ার পরেও গ্রাহকরা নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন। একইরকম ভাবে যাঁরা ৪৯৯ টাকার রিচার্জ করবেন, তাঁরা দিনে ২জিবি করে ৫৬ জিবি ডেটা খরচের পাবেন অতিরিক্ত আরও ১০ জিবি ডেটা। শুক্রবার জিওর তরফে এই ঘোষণা করা হয়। তবে এই সুবিধা শুধুমাত্র প্রথম মাসের জন্যই।

SSC-র ফলপ্রকাশে নিষেধাজ্ঞা উঠল হাইকোর্টের নির্দেশে

upcoming-ssc-jobs-exam-date-2014-ssc-cr-org_

SSC-র ফলপ্রকাশে নিষেধাজ্ঞা উঠল হাইকোর্টের নির্দেশে। তবে একটি মামলায়। আদালতে এনিয়ে চলছে একাধিক মামলা। সেগুলিতে এখনও ফলপ্রকাশে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকায়, জট অবশ্য কাটেনি। ফলে SSC-SLST অর্থাত্‍ ক্লাস নাইন থেকে টুয়েলভ পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া ঘিরে জটিলতা সেই তিমিরেই।

রাজ্য সরকারের নিয়ম অনুযায়ী, SSC-তে অগ্রাধিকার পান B Ed প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা। গতবছর রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া বা RCI- থেকে প্রশিক্ষিত প্রার্থীরা এনিয়ে একটি মামলা করেন হাইকোর্টে। তাঁদের দাবি , RCI-থেকে তাঁরা B Ed করলেও, সেই প্রশিক্ষণকে মান্যতা দেওয়া হচ্ছে না। তাঁদেরও SSC-র নিয়োগে অগ্রাধিকার দিতে হবে, দাবি মামলাকারীদের।

হাইকোর্টের নির্দেশে তাঁরা পরীক্ষায় বসলেও, পরে আদালত জানায়, যেহেতু মামলার এখনও নিষ্পত্তি হয়নি তাই SSC SLST-র ফল আপাতত প্রকাশ করতে পারবে না রাজ্য। RCI থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সেই মামলাতেই আজ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলেন বিচারপতি রাজীব শর্মা। তবে SSC-র ফলপ্রকাশ নিয়ে আরও মামলা চলছে হাইকোর্টে যেখানে নিষেধাজ্ঞা এখনও বহাল। ফলে ফল প্রকাশে বাধা রয়েই গিয়েছে।

পৃথিবীর দিকে তারা ছুটে আসছে অসম্ভব গতিতে!

download-1

আর মেরেকেটে মাস দেড়েক। পৃথিবীর দিকে তারা ছুটে আসছে অসম্ভব গতিতে!

খুব দূর থেকে এক রকম ঝাপসা ভাবেই ধেয়ে আসা ওই দু’টি মহাজাগতিক বস্তুকে দেখতে পেয়েছে নাসার মহাকাশযান- ‘নিওওয়াইজ’। তাদের একটিকে জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মনে হয়েছে ভয়ঙ্কর একটি গ্রহাণু বা অ্যাস্টারয়েড। অন্যটি ধূমকেতু। তাঁদের এও মনে হয়েছে, বহু দূর থেকে যাকে ‘গ্রহাণু’ বলে মনে করা হচ্ছে, তা একটি ধূমকেতুও হতে পারে।

‘হামলা চালাতে’ পৃথিবীর কক্ষপথে ঢুকে পড়বে দু’-দু’টি অচেনা, অজানা মহাজাগতিক বস্তু। আর ঠিক মাস দেড়েকের মধ্যেই। প্রায় একই সঙ্গে। ‘নিওওয়াইজ’ মহাকাশযান দেখেছে, পৃথিবীর দিকে রীতিমতো ঝোড়ো গতিতে ছুটে আসছে এই দুই আগন্তুক।

দুবাইগামী এমিরেটসের বিমানে মিলল সাপ

emirates-airlines-emirates-bookings-emirates-tickets-flight

দুবাই:  দুবাইগামী এমিরেটসের বিমানে মিলল সাপ। যার জেরে বাতিল হল উড়ান। খবরে প্রকাশ, গতকাল মাস্কাট থেকে দুবাইগামী এমিরেটসের বিমান ফ্লাইট ইকে০৮৬৩ কে বাতিল করা হয়। কারণ, যাত্রী ওঠার আগে, বিমানের কার্গো সেকশনের মধ্যে একটি সাপ নজরে আসে। বিমান সংস্থার মুখপাত্র জানিয়েছেন, ইঞ্জিনিয়ারিং ও সাফাইকর্মীরা বিমানটিকে পুরো সাফ করার পরই বিমানটি ফের উড়ানের জন্য তৈরি হবে।

বিমানের মধ্যে সাপের আবির্ভাব এই প্রথম নয়। গত বছর নভেম্বর মাসে তোরিয়োঁ থেকে মেক্সিকো সিটি যাওয়ার সময় মাঝ আকাশে এরোমেক্সিকো বিমানের মধ্যে কেবিন ব্যাগাজের জায়গায় একটি দৈত্যকায় সাপ দেখতে পান যাত্রীরা। তাঁরা রীতিমত আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। সেই অবস্থায়, একটি কম্বল দিয়ে সাপটিকে বাগে আনেন যাত্রী ও ক্রু-সদস্যরা।